LifestyleScience and Tech

দীপ্ত লুচি পাতা: আবাসস্থল, ব্যবহার, ঔষধি গুণ

‘দীপ্ত লুচি পাতা’ নামটা হয়তো অনেকের কাছে নতুন কিন্তু পেপেরোমিয়া (Peperomia) নামটা অনেক জনপ্রিয়। পৃথিবীতে অনেক প্রজাতির পেপেরোমিয়া পাওয়া যায়।

‘দীপ্ত লুচি পাতা’ নামটা হয়তো অনেকের কাছে নতুন কিন্তু পেপেরোমিয়া (Peperomia) নামটা অনেক জনপ্রিয়। পৃথিবীতে অনেক প্রজাতির পেপেরোমিয়া পাওয়া যায়। বাংলাদেশে গ্রামের বাড়ির আশেপাশে এই গাছের দেখে মেলে হর-হামেশাই। এর কাণ্ড এবং শাখা-প্রশাখা কিছুটা স্বচ্ছ হওয়ার কারণে এটার মূলগুলো রঙিন পানিতে চুবিয়ে দিয়ে সহজেই উদ্ভিদের রস শোষণ প্রক্রিয়া পরীক্ষা করা যায়। প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কোনো এক শ্রেণীর বইয়ের কোনো এক পরিক্ষার কথা অনেকেরই এখন মনে উঁকি দিচ্ছে নিশ্চই? তো আজ আমরা জানবো অবহেলায়, অনাদরে বেড়ে ওঠা এবং বেশিরভাগ মানুষের নিকট আগাছা হিসেবে পরিচিত দীপ্ত লুচি পাতা গাছ সম্পর্কে।

ছোট দীপ্ত লুচি পাতা গাছ। ছবি: Jnzl's Photos
ছোট দীপ্ত লুচি পাতা গাছ। ছবি: Jnzl’s Photos

বাংলাদেশে অন্যান্য প্রজাতির তুলনায় সবচেয়ে বেশি যে জাতের দীপ্ত লুচি পাতা উদ্ভিত তার বৈজ্ঞানিক নাম peperomia pellucida এবং উদ্ভিদটি ইংরেজিতে পেপার এল্ডার, শাইনিং বুশ প্লান্ট এবং ম্যান টু ম্যান নামেও পরিচিত। সাধারণত প্রায় ১৫-৪৫ সেন্টিমিটার (৬-১৮ ইঞ্চি) লম্বা হয়ে থাকে। এর থাকে রসালো ডালপালা, চকচকে হৃদয় (♥️) আকৃতির মোটা পাতা। এটি Piperacea (পাইপেরাসাই) পরিবারের সদস্য। পাইপেরাসাই পরিবারটি প্রায় এক ডজন গণ এবং প্রায় তিন হাজার প্রজাতি নিয়ে গঠিত।

শ্রেণিবিন্যাস –

রাজ্য: Plantae
বিভাগ: Angiosperms
বর্গ: Piperales
পরিবার: Piperaceae
গণ: Peperomia
প্রজাতি: P. pellucida
বৈজ্ঞানিক নাম: Peperomia pellucida

আবাসস্থল

বছরব্যাপী ফুল ফোটানো এই গাছটি পুরো এশিয়া এবং আমেরিকা যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন ছায়াযুক্ত, স্যাঁতসেঁতে আবাসস্থলগুলিতে পাওয়া যায়। এটি জন্মায় গুচ্ছাকারে। আলগা, আর্দ্র মাটিতে এবং ক্রান্তীয় থেকে উপক্রান্তীয় জলবায়ুতে এদের সর্বাধিক জন্মাতে দেখা যায়। উদ্ভিদটির বেঁচে থাকার জন্য সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১০° প্রয়োজন। এর থেকে কম তাপমাত্রায় এরা সাধারণত টিকে থাকতে পারে না। তাই শীতপ্রধান দেশে এটি খুব একটা পাওয়া যায় না।

দীপ্ত লুচি পাতা গাছ দেখতে ঝাকালো, ঘন পাতা। এর পাতা সবুজ তবে আকারে ছোট। গাছটি লম্বায় ৩১-৪০ সে.মি.। 📸 International Institute of Tropical Agriculture 📍 Unknown 🗓️ December 9, 2009
দীপ্ত লুচি পাতা গাছ দেখতে ঝাকালো, ঘন পাতা। এর পাতা সবুজ তবে আকারে ছোট। গাছটি লম্বায় ৩১-৪০ সে.মি.। 📸 International Institute of Tropical Agriculture 📍 Unknown 🗓️ December 9, 2009

বাংলাদেশের সর্বত্র স্থানে জন্মালেও এগুলো একেক অঞ্চলে একেক নামে পরিচিত। দেশে সাধারণত নরম বেলে দোঁআশ মাটিই বেশি উপযোগী। লবণাক্ত মাচিতে খুব কমই জন্মে। রাস্তার পাশে, পুকুর পাড়, বিল, ধানক্ষেতের আইল ও সবজি ক্ষেতের নরম মাটিতে গাছটি বেশি জন্মাতে দেখা যায়। এছাড়া পতিত জায়গায়ও এটি জন্মে।

সাধারণ ব্যবহারসমূহ

এটি শাক হিসেবে খাবারের পাশাপাশি ঔষধি ভেষজ হিসেবে ব্যবহার হয়ে আসছে। যদিও এটি বেশিরভাগ মানুষের কাছে তার শোভাময় পাতার জন্য পরিচিত। এর পুরো গাছটি ভোজ্য। রান্না করে এবং কাঁচা উভয়ভাবেই খাওয়া যেতে পারে। বলা হয়ে থাকে এটি একটি ভালো তাপনাশক ঔষধ।

দীপ্ত লুচি পাতা গাছের কান্ড বেশ স্বচ্ছ। এজন্যই উদ্ভিদের রস শোষণ পরীক্ষার জন্য একটি পাত্রে পানি এবং রং যোগ করে তাতে দীপ্ত লুচি পাতা গাছ কয়েক ঘন্টা রেখে দিলে গাছ রস শোষণ করে নেয় এবং কান্ডের স্বচ্ছতার জন্য সেই রং গাছের কান্ডে দেখতে পাওয়া যায়। 📸 Alex Popovkin 📍 Bahia, Brazil 🗓️ December 9, 2009
দীপ্ত লুচি পাতা গাছের কান্ড বেশ স্বচ্ছ। এজন্যই উদ্ভিদের রস শোষণ পরীক্ষার জন্য একটি পাত্রে পানি এবং রং যোগ করে তাতে দীপ্ত লুচি পাতা গাছ কয়েক ঘন্টা রেখে দিলে গাছ রস শোষণ করে নেয় এবং কান্ডের স্বচ্ছতার জন্য সেই রং গাছের কান্ডে দেখতে পাওয়া যায়। 📸 Alex Popovkin 📍 Entre Rios, Bahia, Brazil 🗓️ December 9, 2009

কান্ড থেকে কচি পাতাসহ কান্ডের ডগা কেটে নিলে সেখান থেকে আবার নতুন কান্ড গজায়। কান্ডে ফুলও হয়। ফুল দেখতে সাদা, আকৃতিতে ছোট। ফুলের পাপড়ির উপরিভাগ সাদা কিন্তু নিচের দিকটা সবুজ। ফল দেখতে অনেকটা জিরার মতো। ফলের মধ্যের বীজ সরিষা দানার চেয়েও ক্ষুদ্রাকৃতির। বসন্তের শেষের দিকে বীজ হয়। এসব বৈশিষ্ট্যের কারণে অনেকেই একে ঘরের মধ্যে টবে রেখে যত্ন করতে পছন্দ করেন।

সংস্কৃত ভাষাতে এটিকে ‘গ্রীষ্ম সুন্দরক (Tropical beauty)’ হিসেবেও উল্লেখ করা হয়ে থাকে। এটির সুগন্ধযুক্ত স্বাদ রয়েছে, এটি ক্ষুধা এবং হজমকে উদ্দীপিত করে। পাতাগুলি রসালো এবং মশলাদার স্বাদযুক্ত। শুঁয়োপোকা কামড় দিলে দীপ্ত লুচি পাতা ব্যবহারে উপকার হয় বলে প্রচলিত। পরিপাকশক্তিবর্ধক হিসেবে ব্যবহার করা যেতে পারে এবং সালাদ হিসেবেও কাঁচা খাওয়া হয়ে থাকে।

ঔষধবিজ্ঞানে এর ব্যবহার

এর বেদনানাশক বৈশিষ্ট্যের সাথে এর প্রোস্টাগ্ল্যান্ডিন বা prostaglandins (PG) লিপিড সংশ্লেষণের ওপর প্রভাবের মিল আছে বলে মনে করা হয়। স্ট্যাফাইলোকক্কাস অরিয়াস (Staphylococcus aureus), ব্যাসিলাস সাবটিলিস (Bacillus subtilis), সুডোমোনাস অ্যারুগিনোসা (Pseudomonas aeruginosa) এবং এসচেরিসিয়া কোলি (E. coli) ব্যাকটেরিয়াদের ওপরে করা পরীক্ষার ফলাফল পেপেরোমিয়াকে ব্রড-স্পেক্ট্রাম এন্টিবায়োটিক (Broad-spectrum antibiotic) হিসেবে ব্যবহারের সম্ভাব্যতাকে তুলে ধরে। ব্রড-স্পেকট্রাম অ্যান্টিবায়োটিক হলো এক ধরনের অ্যান্টিবায়োটিক যা দুটি প্রধান ব্যাকটেরিয়া গোষ্ঠির ওপরে কাজ করে, গ্রাম-পজিটিভ এবং গ্রাম-নেগেটিভ। সোজা কথা বললে এমন অ্যান্টিবায়োটিক যা রোগ-ব্যাধিজনিত ব্যাকটেরিয়ার বিস্তৃত বিস্তারের বিরুদ্ধে কাজ করে।

পে‌পারো‌মিয়া গাছের পাতার গোড়া থেকে উদ্ভূত লম্বাটে আকারে ক্রমবর্ধমান ফুল রয়েছে। ফল খুব ছোট, আয়তাকার, শৈলশিরাময়। 📸 Hein van Winkel 📍 Botanical Garden, Singapore 🗓️ July 27, 2009
পে‌পারো‌মিয়া গাছের পাতার গোড়া থেকে উদ্ভূত লম্বাটে আকারে ক্রমবর্ধমান ফুল রয়েছে। ফল খুব ছোট, আয়তাকার, শৈলশিরাময়। 📸 Hein van Winkel 📍 Botanical Garden, Singapore 🗓️ July 27, 2009

পেপেরোমিয়ার শুকনো পাতা থেকে ক্লোরোফর্ম বের হয় হয় যেটাকে ট্রাইকোফাইটন মেন্টাগ্রোফাইটস (Trichophyton mentagrophytes) এর বিরুদ্ধে কাজ করে। ইঁদুরের ওপরে পরীক্ষা করে এই গাছের প্রদাহ বিরোধী এবং বেদনানাশক বৈশিষ্ট্য পর্যবেক্ষণ করা গেছে। এছাড়া দীপ্ত লুচি পাতা গাছের শাক ডায়াবেটিসে আক্রান্ত্র রোগীদের রক্তের গ্লুকোজ মাত্রা হ্রাসে বেশ কার্যকরী  এবং গবেষনায় দেখা গেছে এর জলীয় নির্যাস উইস্টার ইঁদুরের ফ্র্যাকচার নিরাময়কে ত্বরান্বিত করে।

যদিও উদ্ভিদটি হাইপারস্পেনসিটিভ রোগীদের হাঁপানির মতো লক্ষণ সৃষ্টি করতে পারে তবে মানুষের প্রতি বিষাক্ততার বিষয়ে এখনো কোনো ক্লিনিকাল তথ্য পাওয়া যায়নি।

চিরাচরিত ওষুধ হিসেবে ব্যবহার

বাংলাদেশের বেশিরভাগ মানুষের কাছে এটি একটি আগাছা ছাড়া কিছুই নয়। কিন্তু বিভিন্ন দেশে উদ্ভিদটিকে এথনোমেডিসিন (Ethnomedicine) হিসেবে নানান ভাবে ব্যবহার করা হয়। এথনোমেডিসিন হলো উদ্ভিদ এবং প্রাণীর জৈব ক্রিয়াশীল যৌগের উপর ভিত্তি করে ট্র্যাডিশনাল বা চিরাচরিত ওষুধের একটি গবেষণা। এসব ঔষধের জ্ঞান সাধারণত বিভিন্ন নৃগোষ্ঠীদের মধে চর্চা করতে দেখা যায় করে। তবে পশ্চিমা ওষুধগুলোতেও এথনোমেডিসিনের একটা অংশ ব্যবহার করা হয়ে থাকে এবং এ নিয়ে বেশ গবেষনাও করা হয়। পেটে ব্যথা, ব্রণ, ফোঁড়া, শ্বাসকষ্ট, ক্লান্তি, গাউট, মাথা ব্যথা, রেনাল ডিজঅর্ডার এবং বাতজনিত জয়েন্ট ব্যথার চিকিৎসা করতে পেপেরোমিয়া ব্যবহৃত হয়ে আসছে। বলিভিয়ায়, আল্টেনোস ইন্ডিয়ান (Alteños Indian) -রা রক্তক্ষরণ বন্ধ করতে পুরো গাছটি ব্যবহার করে। শিকড় জ্বরের চিকিৎসার জন্য ব্যবহৃত হয় এবং পিচ্ছিল তরল ক্ষতের ড্রেসিং হিসাবে ব্যবহৃত হয়।

উত্তর-পূর্ব ব্রাজিলে, উদ্ভিদটি দেহের কোলেস্টেরল কমাতে ব্যবহৃত হতো এবং গবেষনায় তা কার্যকরী বলে প্রমাণিত। গুয়ানা এবং অ্যামাজন অঞ্চলে এটি একটি জনপ্রিয় কাশি দমনকারী, ত্বকের কোমলতা বর্ধক এবং মূত্রবর্ধক। এটি ব্রণ এবং ফোড়ার মতো ত্বকের উপরিভাগের রোগগুলোর জন্যও ব্যবহৃত হয়। ফিলিপাইনে এটি স্বাস্থ্য অধিদফতর দ্বারা অনুমোদিত ১০টি ঔষধি গাছের মধ্যে একটি। এটি ইউরিক অ্যাসিডের মাত্রা হ্রাস করতে ব্যবহৃত হয় যা আর্থ্রাইটিস এবং গাউট এর একটি কারণ।

শ্যাওলার ওপর ছোট্ট পেপেরোমিয়ার বা দীপ্ত লুচি পাতা 📸 Tanvir, Nguyen Do 📍Rajbari, Bangladesh 🗓️ July 21, 2020
শ্যাওলার ওপর ছোট্ট পেপেরোমিয়ার বা দীপ্ত লুচি পাতা 📸 Tanvir, Nguyen Do 📍Rajbari, Bangladesh 🗓️ July 21, 2020

পেপেরোমিয়ার ওষুধি গুণাগুণ নেহাৎ কম নয়। এটা দিয়ে যে শুধু উদ্ভিদের মূল দ্বারা পানি শোষণ পরীক্ষা করা হয় না তা তো আজকে জানা গেল। কিন্তু আমাদের আশেপাশে এমন অনেক গাছপালা আছে যাদের সুষ্ঠু ব্যবহার সম্পর্কে আমরা অবগত নই। ফলজ গাছগুলোর পাশাপাশি ভেষজ এবং শোভাবর্ধক গাছগুলোও যে আমাদের নানা উপকারে আসতে পারে সেই ধারণা আমাদের সকলের মাঝেই থাকা উচিত।

রেফারেন্স:

  • Khan MR, Omoloso AD. Antibacterial activity of Hygrophila stricta and Peperomia pellucidaFitoterapia. 2002 Jun;73(3):251-4. doi: 10.1016/s0367-326x(02)00066-7.
  • H.A Akinnibosun, F.I Akinnibosun, B.E German. Antibacterial activity of aqueous and ethanolic leaf extracts of Peperomia pellucida (l.) H. B. & K. (piperaceae) on three gram-negative bacteria isolates. Science World Journal (2008) doi: 10.4314/swj.v3i4.51825
  • Mariade Fátima Arrigoni-Blank, Elena G Dmitrieva, Elaine Maria Franzotti, Angelo Roberto Antoniolli, Márcio Roberto Andrade, Murilo Marchioro, Anti-inflammatoryctivity of Peperomia pellucida (L.) HBK (Piperaceae), Journal of Ethnopharmacology, Volume 91, Issues 2-3, 2004, Pages 215-218, ISSN 0378-8741, DOI: 10.1016/j.jep.2003.12.030.
  • Bojo, A.C.; Garcia, E.A.; Pocsidio, G.N. (Central Mindanao Univ., Musuan, Bukidnon (Philippines). Dept. of Chemistry); Antibacterial activity of Peperomia pellucida (L.) HBK (Piperaceae)  [1994]. Asia Life Sciences (Philippines). 
  • Wei LS, Wee W, Fu Siong JY, Syamsumir DF. Characterization of Anticancer, Antimicrobial, Antioxidant Properties and Chemical Compositions of Peperomia pellucida Leaf ExtractActa Med Iran. 1;49(10):670-674.
  • Antifungal activity of Piper aduncum and Peperomia pellucida leaf ethanol extract against Candida albicans. AIP Conference Proceedings, Volume 1844, Issue 1, id.020006, May 2017. DOI: 10.1063/1.4983417
  • Peperomia pellucida in diets modulates hyperglyceamia, oxidative stress and dyslipidemia in diabetic rats. Journal of Acute Disease, Volume 1, Issue 2, 2012, Pages 135-140. DOI: 10.1016/S2221-6189(13)60031-1
  • Florence, N.T., Huguette, S.T.S., Hubert, D.J. et al. Aqueous extract of Peperomia pellucida (L.) HBK accelerates fracture healing in Wistar rats. BMC Complement Altern Med 17, 188 (2017). DOI: 10.1186/s12906-017-1686-3
  • Muñoz V, Sauvain M, Bourdy G, Arrázola S, Callapa J, Ruiz G, Choque J, Deharo E. A search for natural bioactive compounds in Bolivia through a multidisciplinary approach. Part III. Evaluation Of the antimalarial activity of plants used by Alteños Indians. J Ethnopharmacol. 2000 Jul;71(1-2):123-31. doi: 10.1016/s0378-8741(99)00191-9. PMID: 10904155.
  • উইকিপিডিয়া
  • Drugs.com
  • tropical.theferns.info

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button